শুধু একাউন্ট খুলে রাখলেই বিটকয়েনে আয় (মাইনিং) কোন ইনভেস্ট ছাড়া (ফুল স্ক্রিণশট সহ)

আসসালামু আলাইকুম, বিটকয়েনের অনেক সাইট, কেউ আছে ক্লিক করে আয়, কেউ আছে ১৫ মিনিট পর কেউ বা  প্রতি ঘন্টায় ১ বার ক্লিকে , আজ যে সাইট নিয়ে আলোচনা করবো তা বিটকয়েন এই পেমেন্ট কিন্তু  এর সিস্টেম আলাদা, যত বিটকয়েন মাইনার আছে যেমন – জি পি ইউ, সি পি ইউ তাদের সবার ইনভেস্ট করে শুরু করতে হয়।   ০.০০১ ইনভেস্ট করলে দিনে আসে হয়তো  ০.০১  এরকম , বিটকয়েনে ০.০১ এর দাম এখন প্রায় ১০০ ডলার।

নিচে অন্য সাইটের বিট কয়েন মাইনিং এর চিত্র টা পরে  দেব। এখন কালেক্ট করতে পারিনি, অন্যান্য যায়গাতে ইনভেস্ট করতে হয় আর কি, আর কোন সফটওয়ার নামালে তো ফ্রি হইলে তাহা ভাইরাস ছাড়া কিছু না, আর দামীহইলে একেক্টা ২০০ বা ৩০০ ডলার দাম। আজ সংক্ষেপে এর পরিচয় দিলাম, বাকিটা পরে বলা যাবে অন্যদিন ।


আজ বলব সেই সাইটের বিষয়ে।  ফলো করুনঃ


কয়েন বেজ এর একাউন্ট না থাকলে  এই লিংক থেকে কয়েনবেসের একাউন্ট করে নিন, যা সকল বিটকয়েন এর জন্য কাজে লাগবে। 


তারপর এই লিং ক এ ক্লিক করুন 

এরকমঃ আসলে 

কয়েনবেজ এর এড্রেস দিয়ে স্টার্ট মির্ণিং এ চাপ দিন; ও অপেক্ষা করুন 

 

২. প্রথমে ৫-১০ মিনিট পেজে থাকবেন লগিন করে, দেখবেন যোগ হচ্ছে কিনা, না হইলে পেজ রিফ্রেশ দিবেন।

৩. পরে আর আপনি অনলাইনে না থাকলেও আপনি লগ আউট করবেন না। ্তাতে আমি দেখলাম কয়েন এড হচ্ছে। লগ আউট না করে শুধু ব্রাউজার কেটে দিবেন। এই ট্রিক আপনার পিসি / ফোনে কাজ করলে ভালো হবে,


উইথড্র কত মিনিমাম ?

মিনিমাম ০.০০৫ যার বর্তমান মূল্য ৩৫০ টাকা+,  এটা ৪ দিনেই আপনার হবে। তাদের হিসাবে।


কিভাবে আয় বাড়ানো যায়ঃ

আয় বাড়ানোর উপায়  ২ টি, ১। রেফার করা,   রেফারাল করতে এটা ফলো করুন


২, আপগ্রেড করা। আপওয়ার্ক বা ফ্রিলান্সার এও আপগ্রেড সিস্টেম আছে তাই ভয়ের কিছু নেই। অনেকেই তো আপগ্রেড ছাড়াই টাকা কামাই করে।

আপগ্রেড করতে এটা ফলো করুনঃ 

আমার পরামর্শ থাকবে হাজার ভুয়া সাইট দেখে এখন আপনার ভয় থাকতে পারে , অনেক রিয়াল সাইট ও চলে যায় তাই আগেই আপগ্রেড করবেন না। আগে ১ বার টাকা কয়েনবেজে নিয়ে আসুন,

এদের ৪ তা ভার্সন আছে আমি তাও বলে দিচ্ছি, একেক্টার আয় ভিন্ন। শেষ ভার্সনে আয় বেশি


পেমেন্টঃ আপনি সাইটে পে আউট অপশনে ক্লিক করে দেখে নিতে পারেন ঃ



আজ এপর্যন্তই।   Subscribe my channel , Thank you.

Share This Post

Leave a Comment