কাস্টম রিকোভারি ইন্সটল: আমার অভিজ্ঞতা এবং দু’টি কথা।

[font 888888=”red”]হেলো ট্রিকবিডি, কেমন আছেন সবাই? আশা করি ভালো আছেন। আসলে কথাটা রোজকার ডায়লগ হয়ে গেছে। তাই না বললেই নয়। আর বেশি ভূমিকা না করে চলুন বর্ণনায় যাই।[/font]

কেনো কাস্টম রিকোভারি ইন্সটল করবো?

(১)প্রায় সকল এক্সপার্ট এন্ড্রোয়েড ইউজারই চায় ফোন রুট করতে। কারণ, রুটেড ফোন ব্যাবহারের মজাই আলাদা। ফোন রুট করলে ব্রিক হওয়ার ভয় থাকে। এই ভয় থেকে মুক্ত হতে হলে স্টক রমের ব্যাকআপ রাখা প্রয়োজন। কাস্টম রিকোভারি দিয়ে স্টক রম ব্যাকআপ করা যায়
(২) অনেকেই কাস্টম রম ইন্সটল দিয়ে ফোনের ভার্সন বাড়াতে চান। তাছাড়া, কাস্টম রমে আছে অনেক ভালো ভালো ফিচার। মোবাইল দিয়ে কাস্টম রম ইন্সটল দিতে চাইলে কাস্টম রিকোভারি is a must

(৩) কাস্টম রিকোভারি দিয়ে আপনি যেকোনো ফ্লাশেবল zip ফাইল ফ্লাস দিতে পারবেন। তাছাড়া, কাস্টম রমে আরো অনেক ফিচার আছে যা আপনি গুগল মামুর মাধ্যমে জানতে পারবেন।

কাস্টম রিকোভারি ইন্সটলের শর্ত সমূহঃ

(১) আপনার ফোনের জন্য খুঁজে পাওয়া কাস্টম রিকোভারি আপনার ফোনের ভার্সন উপযোগী হতে হবে।
(২) ফোনের মডেল নাম্বার মিলিয়ে রিকোভারি ইন্সটল দিবেন।

(৩) সম্পূর্ণ নিজ দায়িত্বে কাজটা করবেন। যদি ফোন ব্রিক করে তাহলে কেউ দায়ি থাকবে না, একমাত্র দায়ি থাকবেন আপনি।

আমার অভিজ্ঞতাঃ

আমি যখন আমার ফোনটা হাতে পাই, তখন আমার ফোনের ভার্সন ছিলো 4.1.2 (jellybean)
আমি এতে কাস্টম রম ইন্সটল দিতে চেয়েছিলাম। তাই কাস্টম রমের খুজ করছিলাম। পপুলার ব্রান্ডের ফোন হওয়ায় সহজেই পেয়ে গেলাম। ঐ ফোনের জন্য 4.1.2 বেসড কোনো কাস্টম রিকোভারি নেটে ছিলো না। সব রিকোভারিই ছিলো 4.2.2 বেসড। আর ঐ ফোনের লেটেস্ট ভার্সন ছিলো 4.2.2। আমি ভুল করে ওই ভারসনের একটা TWRP রিকোভারি ইন্সটল দেই। ইন্সটল হলেও ফোন আর রিকোভারি মোডে যায় নি। কয়েকদিন পর সফট ব্রিক করে। তারপর সার্ভিসিং সেন্টারে নিয়ে ২০০ টাকার বিনিময়ে মেরামত করাই। অবশ্য নিজের পিসি থাকলে এই খরচ টা হতো না। তারপর ঐ ভাই, 4.2.2 ভার্সনের স্টক রম ইন্সটল দেন। এখন আমি কাস্টম রম ইন্সটল দিতে পেরেছি।

কাস্টম রম ইন্সটলের ক্ষেত্রে আমার কিছু পরামর্শঃ

(১) অবশ্যই ভালো করে বুঝে শুনে কাজে নামবেন।

(২) দরকার না হলে ইন্সটলের চেষ্টা না করাই ভালো।

(৩) ইন্সটলের আগে বিভিন্ন ব্লগ, ইউটিউব চ্যানেল ঘুরে ঘুরে দক্ষতা অর্জন করবেন।

(৪) বিশ্বস্ত সাইট থেকে ডাউনলোড করবেন। যেমনঃ xda, twrp.me ইত্যাদি ইত্যাদি।

অনেক তো লিখলাম, এখন উপসংহার করি।
পোষ্টটি ভালো লাগলে আমার চ্যানেলটা সাবস্ক্রাইব করবেন।
আমার চ্যানেল
ধন্যবাদ।

Share This Post
About MainitBD Author

শিক্ষা জাতীর মেরুদন্ড! শিখবো, না হয় শেখাবো।

Leave a Comment