জেনেনিন চুল ভালো রাখার ১০ উপায়!

প্রচ্ছদ
জাতীয়
রাজনীতি
অর্থনীতি-ব্যবসা
আন্তর্জাতিক
বিভাগীয় সংবাদ
আইন-আদালত
বিনোদন
খেলা-ধুলা
লাইফ স্টাইল
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

লাইফ স্টাইল
চুল ভালো রাখার ১০ উপায়
February 20, 2017
দৈনন্দিন জীবনে ব্যস্ততার কারণে প্রতিদিন চুলের যত্ন নেওয়া প্রায় অসম্ভব। তাই কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে যাতে সবসময় চুল সুস্থ ও প্রাণবন্ত থাকে। এ ক্ষেত্রে টাইমস অব ইন্ডিয়ার এই পরামর্শগুলো একবার দেখে নিতে পারেন।

১. প্রথমে চুল পানি দিয়ে ভালো কর ভিজিয়ে নিন। এবার একটি ডিম ফেটে নিয়ে পুরো মাথায় লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর ঠান্ডা পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এতে চুলের রুক্ষতা দূর হবে।

২. গরম পানি চুল ধোয়ার জন্য ভুলেও ব্যবহার করবেন না। এতে চুল রুক্ষ হয়ে যায় এবং চুল পড়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয়। তাই সবসময় মাথায় ঠান্ডা পানি ব্যবহার করুন।

৩. এক কাপ কন্ডিশনারের সঙ্গে দুই থেকে তিন টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। এবার ভেজা চুলে এই প্যাক লাগিয়ে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক চুল নরম ও মসৃণ করতে সাহায্য করে।

৪. প্রতিদিন চুলে শ্যাম্পু ব্যবহার করবেন না। এতে চুলের প্রাকৃতিক তেল নিঃসরণে সমস্যা হয়। তাই দুই থেকে তিনদিন পরপর চুলে শ্যাম্পু ব্যবহার করুন। যা চুল পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করবে।

৫. একটি বাটিতে আমন্ড অয়েল নিয়ে ৪০ সেকেন্ড ওভেনে গরম করে নিন। এবার এই তেল চুলে লাগিয়ে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর শ্যাম্পু করে ফেলুন। বেশি করে কন্ডিশনার লাগিয়ে ঠান্ডা পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

৬. আধা কাপ মধুর সঙ্গে এক থেকে দুই টেবিল চামচ অলিভ অয়েল ও একটি ডিমের কুসুম মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। এই প্যাক মাথার তালু ও চুলে লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এবার কুসুম গরম পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক চুলে প্রোটিনের কাজ করবে।

৭. ভেজা অবস্থায় চিড়ুনি দিয়ে চুল আঁচড়াবেন না। এতে চুলের গোড়া অনেক বেশি নরম হয়ে যায় এবং চুল পড়ে যেতে শুরু করে। তাই চুল শুকানোর পর বড় দাঁতের চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ে নিন।

৮. চুল শ্যাম্পু করে ভালোভাবে ধুয়ে নিন। এবার এক টেবিল চামচ লেবুর রস চুলে ম্যাসাজ করে নিন। এরপর তোয়ালে দিয়ে মুছে চুল শুকিয়ে ফেলুন। এতে চুল ঝলমলে হবে।

৯. গরম পানির সঙ্গে সমান পরিমাণ আপেল সিডার ভিনেগার মিশিয়ে চুলে লাগান। ৫ মিনিট পর পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এটি চুলের শুষ্কতা দূর করে চুল সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

১০. চুলের সবচেয়ে বেশি ক্ষতি করে খুশকি ও যেকোনো সংক্রমণ। তাই স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুলের জন্য সবসময় মাথার ত্বক পরিষ্কার রাখার চেষ্টা করুন। বাইরে গেলে স্কার্ফ দিয়ে চুল ঢেকে রাখুন এবং রোদে গেলে ছাতা ব্যবহার করুন।

সূত্র-Zoombangla

Share This Post
About MainitBD Author

শিক্ষা জাতীর মেরুদন্ড! শিখবো, না হয় শেখাবো।

Leave a Comment