উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ, ডায়বেটিসের ঝুঁকি কমাবে যেসব খাবার!

ইচ্ছেমত মিষ্টি, তেলে ভাজা বা মাংসের ঝোল খাচ্ছেন আর অন্যদিকে হৃদয়টা ফাটা বেলুন হয়ে চুপসে যাচ্ছে, কোনও খেয়ালই দিচ্ছেন না সেদিকে। কিন্তু হৃদয়টাকে যদি এভাবে অবহেলা করতে থাকেন একদিন হুট করে দেখবেন আর কাজ করছে না। তখন চাইলেও আর হয়ত কিছুই করার থাকবে না। তবে সময় থাকতে অনেক কিছুই করা সম্ভব। শুধুমাত্র খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন এনে উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ এবং ডায়বেটিসের ঝুঁকি কমিয়ে ফেলা সম্ভব। আসুন জেনে নেয়া যাক কোন কোন খাবার খাওয়া বন্ধ করলে স্বাস্থ্যঝুঁকি কমবে।
রাইসব্র্যান অয়েল: নারকেল তেল, পাম অয়েল ঘি জাতীয় স্নেহ পদার্থ সরাসরি হৃৎপিণ্ডে প্রভাব ফেলে। কারণ এতে জমাট বাঁধা চর্বি থাকে। এক্ষেত্রে রান্নায় রাইসব্র্যান অয়েল ব্যবহার করা উত্তম। রাইসব্র্যান অয়েল সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর তেল, এটি তুষ থেকে তৈরি হয়।

অ্যাভোকাডো: শরীরে কোলেস্টরলের মাত্রা বাড়ায় প্রাণীজ ফ্যাট মানে মাখন। ওদিকে মনোআনস্যাচুরেটেড ফ্যাটকে স্বাস্থ্যকর ফ্যাট বলে। এটি উদ্ভিজ ফ্যাট যা অ্যাভোকাডোতে থাকে। অ্যাভোকাডো স্বাদে-গন্ধে মাখনের মতোই। কাজেই অ্যাভোকাডো খাওয়া যেতে পারে মাখনের বদলে।

পপকর্ন: হঠাৎ মুচমুচে কিছু খেতে ইচ্ছে করছে? আলুর চিপসের বদলে মুখ ভর্তি করে নিন পপকর্নে। কারণ আলুর চিপসে প্রচুর পরিমাণে তেল ও লবন থাকে, এসব শরীরের কোনো কাজেই আসে না। পপকর্ণে চিপসের চাইতে লবণ অনেক কম থাকে। আর নিজেই যদি ভুট্টার দানা থেকে পপকর্ন তৈরি করে নিতে পারেন তবে তো কথাই নেই।

মাল্টিগ্রেইন বিস্কুট: মাসিক বাজারে খাবারের মধ্যে অত্যাবশ্যকীয় নাম বিস্কুট। এক্ষেত্রে সাধারণ বিস্কুট নয় মাল্টিগ্রেইন বিস্কুট দেখে কিনুন। এসব বিস্কুটে প্রচুর আঁশ থাকে যা আমাদের রক্তে কোলেস্টরলের মাত্রা কমায়।

আখরোট: প্রতিদিন এক কাপ আখরোট শরীরের রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়া কার্যকর করে তোলে। আখরোটে ওমেগা-৩ নামের চর্বি থাকে, যা নানা রকম প্রদাহের বিরুদ্ধে কাজ করে ফলে নিয়মিত দূষিত রক্ত পরিসঞ্চালিত হয়ে হার্ট ভাল রাখে।

শিম-বরবটি: শিম, বরবটি রক্তচাপ কমাতে সহায়তা করে। তাই প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় ওষুধ বিবেচনা করে এগুলো রাখতে পারেন।

সয়া দুধ: সয়ায় উচ্চমাত্রার পলিসেচ্যুরেটেড ফ্যাট থাকে। এছাড়াও এতে ভিটামিন, ফাইবার ও মিনারেল রয়েছে। সয়া স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। সয়া প্রোটিন রক্তের ক্ষতিকর কোলেস্টেরেল কমাতে সাহায্য করে।

খাদ্যাভাসে ছোটখাট পরিবর্তন এনে হৃদপিণ্ড ভাল রাখুন, ভাল থাকুন।

Share This Post
About MainitBD Author

শিক্ষা জাতীর মেরুদন্ড! শিখবো, না হয় শেখাবো।

Leave a Comment