অতিরিক্ত সেদ্ধ কুসুম সিগারেটের চাইতেও ভয়ংকর!

নাস্তার টেবিলে সকাল সকাল সেদ্ধ ডিম থাকবে না, ভাবা যায়? অথচ সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, অতিরিক্ত সেদ্ধ ডিম খেলে হার্ট অ্যাটাক, ব্রেন স্ট্রোক হওয়ার সম্ভবনা বাড়ে। কারণ এতে আমাদের দেহে ক্যারোটিড আর্টারি স্টেনোসিস তৈরি হয়। প্রায় বারোশ’ নারী-পুরুষের ওপর সমীক্ষা চালিয়ে কানাডার ওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল বিজ্ঞানী জানায় যে, ধূমপান করার চাইতেও প্রতিদিন ডিম খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে বেশি ক্ষতিকর। এক জার্নালে তাঁদের গবেষণাপত্রটি প্রকাশিত হয়েছে।
অতিরিক্ত ডিম খাওয়ার ফলে ধমনীতে যে পরিমাণ ক্যারোটিড প্লেক তৈরি হয় ধূমপানেও সে পরিমাণ প্লেক তৈরি হয় বলে মতামত দিয়েছেন আমেরিকান হার্ট অ্যাসোশিয়েসনের কার্ডিওলজি বিভাগের চিকিৎসক জর্ডন তোমাসেলি। তিনি আরও জানান, এতে রক্তচাপ বাড়ে এবং ফুসফুসে ক্যানসার হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

এতসব জানার পরও যদি নাস্তার টেবিলে সেদ্ধ ডিম চান তবে কী করে খাবেন? এর সমাধানও চিকিৎসক জর্ডন তোমাসেলি জানিয়ে দিয়েছেন। আমাদের দেহে দৈনিক তিনশ মি.গ্রা. কোলেস্টেরলের প্রয়োজন পড়ে, কিন্তু একটি সেদ্ধ ডিমের কুসুমে একশ পঁচাশি মি.গ্রা. কোলেস্টেরল থাকে।

সারাদিনে আমরা সেদ্ধ ডিমতো খাইই এছাড়া কোলেস্টেরল, প্রোটিনজাতীয় খাদ্যও খাই। এতে করে শরীরে প্রতিদিন তিনশ মি.গ্রা. বেশি কোলেস্টেরল জমা হয়। এক্ষেত্রে জর্ডন পরামর্শ দেন, ডিমের কুসুমটুকু বাদ দিয়ে সাদা অংশ খেতে পারলে আমাদের দেহে পরিমাণ মতো ভিটামিন ই, কোলেস্টেরল পৌঁছুবে। মূলকথা হচ্ছে, অতিরিক্ত ডিমের কুসুম খেলে কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

সূত্র -বাংলা২৪

Share This Post
About MainitBD Author

শিক্ষা জাতীর মেরুদন্ড! শিখবো, না হয় শেখাবো।

Leave a Comment