এই ফাল্গুন এ ত্বকের যত্ন।

আবহাওয়ায় ত্বক রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে পড়ে। নষ্ট হয়ে যায় ত্বকের সৌন্দর্য। এসময় ত্বকের নমনীয়তা ও সজীবতা ধরে রাখতে অনেকেই ছুটে চলেন নামি-দামি বিউটি পার্লারে। কর্মব্যস্ত জীবনে ত্বকের যত্ন নিতে যাদের পার্লারে যাওয়ার একদম সময় নেই, তারা ঘরে বসে নিজেই নিতে পারেন নিজের ত্বকের যত্ন। এগুলো হচ্ছে-
• তিলের তেল, গ্লিসারিন ও গোলাপজল সমপরিমাণে মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করলে ত্বক সুন্দর ও মসৃণ হয়।
• সপ্তাহে একদিন মধু, গ্লিসারিন, লেবুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে মাস্ক তৈরি করে লাগাতে পারেন। এই মাস্ক পরিষ্কারের পাশাপাশি ময়েশ্চারাইজারের কাজ করবে।
• মুলতানি মাটি, কাঁচা হলুদ ও জলপাইয়ের তেল একসঙ্গে মিশিয়ে মাস্ক তৈরি করে মুখে, হাতে ও পায়ে লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেললেও ত্বক সতেজ হবে।
• যাদের হাতের চামড়া অত্যাধিক পরিমাণে রুক্ষ, তারা ক্ষারযুক্ত সাবান ব্যবহার না করে ময়েশ্চারাইজারযুক্ত সাবান ব্যবহার করলে উপকার পাবেন।• ত্বকে কালো দাগ হলে দাগযুক্ত স্থানে লেবুর রস ও মধু লাগান। লেবুর রস ও মধু ত্বকের কালো দাগ দূর করে।হাত-পায়ে গ্লিসারিন বা লোশন ম্যাসাজ করলে ত্বকের ভিতরে রক্ত-সঞ্চালনে হয়, ফলে ত্বক সজীব হয়ে ওঠে।
• এ সময় প্রচুর তাজা ফলমূল ও শাক-সবজি পাওয়া যায়, এসব খেলেও ত্বক ভালো থাকে।
• পানি ত্বকের ময়েশ্চারাইজ হিসেবে কাজ করে। প্রচুর পরিমাণে পানি পান করলে ত্বকের ময়েশ্চারাইজ বজায় থাকবে।
• মাসে অন্তত একবার ভালো কোনো বিউটিপার্লার থেকে মেনিকিউর ও পেডিকিউর করলে হাত-পায়ের ত্বক সুন্দর থাকে।
• খুব বেশি সমস্যা হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া উচিৎ। আপনার ত্বক যেমনি হোক না কেন নিয়মিত যত্ন নিয়ে ত্বককে করে তুলতে পারেন উজ্জ্বল ও লাবণ্যময়। তাই একটু সময় নিয়ে এ ফাগুনে আপনার ত্বক রাখুন প্রকৃতির মতোই প্রাণবন্ত ও সজীব।

Share This Post

Leave a Comment