শুধু শুভ অনুষ্ঠানেই আমপল্লব কেন! রোজ চা বানিয়ে খান, রক্তে চিনি কমবে!

অবিনাশ কবিরাজঃ

এখন আর বয়স্করাই নন, ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হচ্ছে ছোট বাচ্চারাও। মধুমেহ রোগে আক্রান্ত রোগীদের সংখ্যা দিনে দিনে এক বেড়ে চলেছে যে, এটা এক বিশ্বব্যাপী মহামারীতে পরিণত হয়েছে। দু ধরণের ডায়াবেটিস লক্ষ্য করা যায়। টাইপ ১, খুব ছোটবেলা থেকেই এই রোগে আক্রান্ত হন রোগীরা। এই রোগ সারানোর জন্য এখনও পর্যন্ত কোনও সঠিক চিকিত্‍সা আবিষ্কার হয়নি। তবে ইনসুলিন দিয়ে যতদিন রোগীকে বাঁচানো যায়, সেই চেষ্টাই করেন চিকিত্‍সকরা। টাইপ ২, ডায়াবেটিস রোগীদের প্রায় ৯০ শতাংশ ব্যক্তির হয়ে থাকে। বিশেষজ্ঞরা দাবি করে যে, টাইপ ২ ডায়াবেটিসের শিকার হওয়া এড়ানো যেতে পারে।

শরীরে অতিরিক্ত মেদের বৃদ্ধি টাইপ ২ ডায়াবেটিসের প্রধান কারণ হতে পারে। বিশেষজ্ঞদের মতে, পেটে ও কোমরে মেদ জমা হতে থাকলে ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যেতে পারে। আরও নির্দিষ্ট করে বললে, অগ্ন্যাশয় ও লিভারে (পড়ুন যকৃৎ) জমতে থাকা মেদ শরীরে ব্লাড সুগারের মাত্রাকে নিয়ন্ত্রণে ব্যাঘাত ঘটাতে পারে। ওজন ঝরাতে ও ডায়াবেটিসের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে একটি অভিনব টোটকার সন্ধান দেওয়া হল,

২০১০ সালের একটি সমীক্ষা বলছে, প্রাকৃতিক নিয়মে মধুমেহ রোগটি হাতের মুঠোয় রাখতে আমপাতার চায়ের বিকল্প নেই। শরীরে গ্লুকোজ ও সুগারের মাত্রা সঠিক নিয়ন্ত্রণে রাখতে আম্রপল্লবের চা খান প্রতিদিন। এতে শুধু ডায়াবেটিসই নিয়ন্ত্রণই হয় এমনটা নয়, অতিরিক্ত মেদ ঝরাতে, গ্যাসট্রোইনটেস্টিনাল ট্র্যাক্ট হঠাতে, হৃদরোগ সারিয়ে তুলতেও সাহায্য করে। কীভাবে করবে এই আমপাতার চা, সেই সহজ রেসিপিটা একবার চোখ বুলিয়ে নিন…

উপকরণ- ৩-৪টে আম্রপল্লব, জল

পদ্ধতি– ছোট একটি পাত্রে আমপাতা ফুটিয়ে রাখুন।
ভাপিয়ে নেওয়া হয়ে গেলে, সেটি সারারাত রেখে দিন। সকালে আমপাতা সরিয়ে, জলটি ছেঁয়ে নিন। সকালে ঘুম থেকে উঠেই এই ম্যাজিক পানীয়টি খেলে আপনার শরীর থেকে সুগারের মাত্রা অনেকাংশ কমে যাবে।

কোন কোন রোগ থেকে মুক্তি পাবেন

উচ্চ-রক্তচাপের ফলে আমাদের শরীরে নানা রকম রোগের লক্ষণ দেখা যায়। বিশেষ করে কিডনির সমস্যা, হৃদরোগ, যৌনসমস্যা, চোখে ছানি পড়ার সম্ভাবনা থাকে। তবে এই আম্রপল্লবের চা খেলে ওবেসিটি, ডায়াবেটিস, কিডনির সমস্যা, স্ট্রোকের মতো সমস্যাগুলি থেকে মুক্তি পেতে পারেন।
এ বিষয়ে যদি কোনও প্রশ্ন থাকে, তাহলে এই মেলে যোগাযোগ করুন: Avinash.Kaviraaj@gmail.com

 

Share This Post

Leave a Comment