সুইসাইড গেম, যে গেমটি খেলে আত্নহত্যা করেছে ৩৮২ জন তরুন তরুণী।কথিত আছে বাংলাদেশেও মৃত্যুর সংখ্যা ৮ জন।

ফেসবুক সহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক পত্রিকা সহ নিউজে গত কয়েক দিন ধরে একটি গেম নিয়ে খুব লেখা লেখি হচ্ছে। গেমটির নাম Blue Whale Game

অনেকে ইতিমধ্যেই শুনেছেন গেমটিতে বিশেষ একটি পন্থায় সুইসাইড করাতে বাধ্য করা হচ্ছে । গেমটি তৈরি করেছেন রাশিয়ান একজন গেম ডেপলপার নির্মাতা,বর্তমানে তিনি জেলে। গেমটিতে সর্বমোট ৫০ টি লেভেল রয়েছে যা ৫০ দিনে আপনাকে শেষ করতে হবে। প্রতি লেভেলে আপনাকে এক একটা কাজ করে তার প্রমান স্বরুপ ছবি কিংবা ভিডিও আপলোড করতে হবে। এবং একেবারে শেষ লেভেল আপনি পুরষ্কার স্বরুপ পাবেন মৃত্যু।
গেমটি খেলতে আপনাকে বিশেষ আইপি ব্যাবহার করতে হয়।
.
প্রশ্নঃ
১. যদি গেমটি আনস্টল করে দেই…?
২. যদি লেভেল শেষ না করি…?
৩. যদি সুইসাইড না করি..?
৪. থানাই মামলা করবো…?
.
উত্তরঃ
১. আনস্টল করলেও তারা আপনার সাথে যোগাযোগ করতে পারবে। কেননা গেমটি খেলতে বিশেষ আইপি ব্যাবহার করতে হবে। আর যেহেতু আপনি প্রমান স্বরুপ পিকচার কিংবা ভিডিও দিচ্ছেন সুতরাং যোগাযোগ করাটা কোন ব্যাপার না।
২. গেমটি এতটাই মজার এবং ইমোসোনাল সিস্টেমে তৈরি আপনি খেলতে বাধ্য হবেন। আর হ্যা যদি তাও না হয় তবে আপনাকে ব্লাকমেইল করা হবে।
৩. সুইসাইড করতে আপনাকে বাধ্য করা হবে । আপনার পরিবারের সবাইকে মেরে ফেলার হুমকি দিলে আপনি কি করবেন..?
৪. মামলা করে কোন লাভ হবে না।কেননা ডে গেমটি তৈরি করেছে সে এখন জেলে। অনেক মডারেটরদের ও আটক করা হয়েছে এবং এই বিষয় নিয়ে ইতিমধ্যেই উইকিপিডিয়া সহ বিভিন্ন সাইটে নোটিশ দেওয়া হয়েছে।
.
গত কাল পর্যন্ত এই গেম খেলে মৃত্যু সংখ্যা ৩৮২ জন। কথিত আছে বাংলাদেশেও মৃত্যুর সংখ্যা ৮ জন।
.
বিস্তারিত তথ্য পাবেন – এখানে

আসুন, এর বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলি। ডিপ্রেশনে থাকলে পরিবার / বন্ধুদের সময় দেওয়ার চেষ্টা করুন, অনলাইনে নয়।
আর প্রত্যেক পিতা মাতার নিকট অনুরোধ, আপনার সন্তান অনলাইনে কি করছে তার বিষয়ে সজাগ থাকুন।

তথ্য সুত্রঃ সাইবার ৭১ -We Hack to Protect Bangladesh

Share This Post
About MainitBD Author

শিক্ষা জাতীর মেরুদন্ড! শিখবো, না হয় শেখাবো।

Leave a Comment